নিশিকাব্য গানের লিরিক্স (হাবিব)

নিশি গভীর হয়
চোখের পাতা এক হয় না….হয় না,
তুমি কাছে নেই বলে…
দু’চোখ নিদ্রা যায় না…
নিশি কাব্যে তোমার আগমন
দ্যেতনায় তবু এই তনু মন
কাছে এস,করব বরণ
বিনিদ্র রই তোমার কারণ
এই নিশি তুমি বিনা
পূর্ণতা পায় না, পায় না
তুমি কাছে নেই বলে দু’চোখ নিদ্রা যায় না
তুমি এলে এই নিশি আলোয় যাবে ভরে
নিশি থেকে উষা হবে মনের অগোচরে
তুমি এলেই তবে হবো নিদ্রা মগ্ন
হাহাকারে ভরা আজ এই নিশি লগ্ন
তোমার মুখটি করি স্মরণ
মনে আধাঁর স্মৃতি আবরণ
শূন্যতা, শূন্যতা আর হয় না সহন
নিশিজুড়ে আমার জাগরণ…
হাত বাড়িয়ে তোমায়
ছোঁয়া যায় না…যায় না,
তুমি কাছে নেই বলে
দু’চোখ নিদ্রা যায় না

গোধূলী লগন গানের লিরিক্স (হাবিব)

একসাথে দুজনে বৃষ্টিতে ভিজে একাকার
ভালবাসা নয়নে আজ তোমার আমার
এখন গোধূলী সময়, মন যেন কিছু চায়
চলোনা পাখি হয়ে, উড়াল দিই অজানায়
আসে যদি কাল বৈশাখী ঝড়,
বল তো কি হবে তারপর
মনে দুজনারই প্রেমের লহর
আসে এখন যদি কোন ঝড়
ঝড় আসবে আসুক
তাকিয়ে থাকতে চাই ঐ দু’নয়নে
ভয় করি না কোন
ঝড় জানেনা ভালবাসার মানে
আজ এই গোধূলি লগন, পাশাপাশি বসে দুজন
পাছে কিছু চায় মন
এই ভয়ে আছি এখন
আসে যদি কাল বৈশাখী ঝড়
যা হবার হোক না তারপর
মনে দুজনারই প্রেমের লহর
আসে এখন যদি কোন ঝড়
তোমাতে প্রেম সব
চাঁদ হয়ে আছ মন আকাশে
রংগীন আমার বাস্তব
আজ তোমার পাশে বসে
প্রেম করব কি অর্পণ
চলছে মাস শ্রাবণ
দেখেছি ভরে দু নয়ন
জানিনা কি হয় কখন

দিন গেল গানের লিরিক্স (হাবিব)

দিন গেল তোমার পথ চাহিয়া
মন পোড়ে সখি গো কার লাগিয়া
সহে না যাতনা তোমারো আশায় বসিয়া
মানে না কিছুতে মন আমার যায় যে কাঁদিয়া
পুড়ি আমি আগুনে
ও…ও…ও…
দিন গেল তোমার পথ চাহিয়া।।

যার লাগি তরী বেয়ে যায়
জীবন গতি সেই জনা কি রেখেছে খবর
কার তরে গান গেয়ে যাই অচেনা সুরে
বুঝি না কেবা আপন কে বা পর
যার কথা মন ভেবে যায়
যার ছবি মন এঁকে যায়
ও…যারে হায় এই মনে চায়
জীবনে পাব কি তার দেখা
সহে না যাতনা তোমারো আশায় বসিয়া
মানে না কিছুতে মন আমার যায় যে কাঁদিয়া
পুড়ি আমি আগুনে
ও…ও…ও…
দিন গেল তোমার পথ চাহিয়া।।

যারে ভাবি প্রতি রাতে
কার ইশারাতে
তোমারে খুঁজে যাই স্বপনে
আশার পথ চেয়ে রই প্রতিটি প্রহর
কখনো বা শ্রাবণ আনমনে
যার কথা মন ভেবে যায়
যার ছবি মন এঁকে যায়
ও…যারে হায় এই মনে চায়
জীবনে পাব কি তার দেখা
সহে না যাতনা তোমারো আশায় বসিয়া
মানে না কিছুতে মন আমার যায় যে কাঁদিয়া
পুড়ি আমি আগুনে
ও…ও…ও…
দিন গেল তোমার পথ চাহিয়া।।।

ডুব গানের লিরিক্স (হাবিব)

তোমার মাঝে নামবো আমি তোমার ভেতর ডুব
তোমার মাঝে কাটবো সাঁতার ভাসবো আমি খুব
তোমার মাঝেই জীবন-যাপন স্বপ্ন দেখা স্বপ্ন ভাঁঙ্গা
সারা নিশি ভিজবো দুজন ছাদে, ঝরা জলে
সারা নিশি ভিজবো দুজন ছাদে, ঝরা জলে
সবুজ সুখে করবো কুজন নীল আকাশের তলে
পাঁজর দিয়ে আগলে রবো তোমায় সারা জীবন
সূর্য ছোঁবে রাতের অধর, ঝরবে নরম আলো
নামবো তোমার চোখের ভেতর, বাসবো তোমায় ভালো
মনের সবুজ সুতো দিয়ে বুনবো অনেক স্বপন
তোমার মাঝে নামবো আমি তোমার ভেতর ডুব
তোমার মাঝে কাটবো সাঁতার ভাসবো আমি খুব
তোমার মাঝেই জীবন-যাপন স্বপ্ন দেখা স্বপ্ন ভাঁঙ্গা

প্রজাপতি গানের লিরিক্স ( হাবিব )

লাজুক পাতার মত লজ্জাবতি
তোমাকে ছুয়ে দিতে চাই অনুমতি
স্বপ্নের আবির থেকে
ইচ্ছের সাত রঙ মেখে
তোমার আকাশে হব প্রজাপতি
এক মুঠো জোনাকি দাও ছড়িয়ে
আলোর চাদরে দিয়ে নাও জড়িয়ে
এক মুঠো জোনাকি দেবো ছড়িয়ে
আলোর চাদর দিয়ে নেবো জড়িয়ে
নিবির পিছুপিছু সাধের কিছু কিছু
হৃদয় দেয়া নেয়ার সম্মতি
লাজুক পাতার মত লজ্জাবতি
তোমাকে ছুয়ে দিতে চাই অনুমতি
স্বপ্নের আবির থেকে
ইচ্ছের সাত রঙ মেখে
তোমার আকাশে হব প্রজাপতি

হাত ধরে দুজনে চল হারাবো
না হয় নিষেধ ভুলে দু‘পা বাড়াবো
হাত ধরে দুজনে চল হারাবো
না হয় নিষেধ ভুলে দু’পা বাড়াবো
করে পাশাপাশি
ভালবাসাবাসি
ভালবাসায় বল কি ক্ষতি

লাজুক পাতার মত লজ্জাবতি
তোমাকে ছুয়ে দিতে চাই অনুমতি
স্বপ্নের আবির থেকে
ইচ্ছের সাত রঙ মেখে
তোমার আকাশে হব প্রজাপতি

ভালোবাসবো বাসবো রে গানের লিরিক্স

ভালোবাসবো বাসবো রে বন্ধু তোমায় যতনে
আমার মনের ঘরে চাঁন্দের আলো চুইয়া চুইয়া পড়ে
পুষে রাখবো রাখবো রে বন্ধু তোমায় যতনে
ভালোবাসবো বাসবো রে বন্ধু তোমায় যতনে

দুধে আলতা গায়ের বরণ রূপ যে কাঁঞ্চা সোনা
আঁচল দিয়া ঢাইকা রাইখো চোখ যেন পড়ে না ।।
আমি প্রথম দেখে পাগল হইলাম
মন তো আর মানে না
কাছে আইসো আইসো বন্ধু প্রেমের কারণে
ভালোবাইসো বাইসোরে বন্ধু আমায় যতনে

নিশি ভোরে জোনাক নাচে মনের গহীন বনে
স্বপ্ন দেখ বন্ধু তুমি নিগুঢ় আলিঙ্গনে ।।
তোমায় মায়া দিলাম সোহাগ দিলাম
নিলাম আপন করে
পাশে থাকব থাকবরে বন্ধু তোমার কারণে
ভালোবাসবো বাসবো রে বন্ধু তোমায় যতনে
ভালোবাসবো বাসবো রে বন্ধু তোমায় যতনে।

কৃষ্ণ গানের লিরিক্স ( হাবিব )

কৃষ্ণ আইলা রাধার কুঞ্জে,
ফুলে বাইলা ভোমরা
ময়ুর বেশেতে সাজুইন রাধিকা।
সোয়া চন্দন ফুলের মালা,
সখিগণে লইয়া আইলা
কৃষ্ণ দিলায় রাধার গলে,
বাসর হইল উজালা
বাসর হইল উজালা গো,
বাসর হইলো উজালা।
ময়ুর বেশেতে সাজুইন রাধিকা।
কৃষ্ণ দিলায় রাধার গলে,
রাধায় দিলা কৃষ্ণর গলে
আনন্দে সখীগণ নাচে
দেখিয়া প্রেমের খেলা
দেখিয়া প্রেমের খেলা গো
দেখিয়া প্রেমের খেলা।
ময়ুর বেশেতে সাজুইন রাধিকা।
কৃষ্ণ প্রেমের প্রেমিক যারা,
নাচে গায় খেলে তারা
কুল ও মানের ভয় রাখে না,
ললিত ও আর বিশখা
ললিত ও আর বিশখা গো
ললিত ও আর বিশখা।
ময়ুর বেশেতে সাজুইন রাধিকা।

বাদলা দিনে মনে পড়ে গানের লিরিক্স

বাদলা দিনে মনে পড়ে ছেলেবেলার গান
বৃষ্টি পড়ে টাপুর টুপুর নদে এলো বান
যদি ডেকে বলি, এসো হাত ধরো
চলো ভিজি আজ বৃষ্টিতে
এসো গান করি মেঘ মল্লারে
করুনাধারা দৃষ্টিতে
আসবে না তুমি; জানি আমি জানি
অকারনে তবু কেন কাছে ডাকি
কেন মরে যাই তৃষ্ণাতে
এইই এসো না চলো জলে ভিজি
শ্রাবণ রাতের বৃষ্টিতে
কত না প্রণয়, ভালোবাসাবাসি
অশ্রু সজল কত হাসাহাসি
চোখে চোখ রাখা জলছবি আঁকা
বকুল কোন ধাগাতে
কাছে থেকেও তুমি কত দূরে
আমি মরে যাই তৃষ্ণাতে
চলো ভিজি আজ বৃষ্টিতে
যদি ডেকে বলি, এসো হাত ধরো
চলো ভিজি আজ বৃষ্টিতে
এসো গান করি মেঘো মল্লারে
করুনাধারা দৃষ্টিতে
আসবে না তুমি; জানি আমি জানি
অকারনে তবু কেন কাছে ডাকি
কেন মরে যাই তৃষ্ণাতে
এইই এসো না চলো জলে ভিজি
শ্রাবণ রাতের বৃষ্টিতে
বাদলা দিনে মনে পড়ে ছেলেবেলার গান
বৃষ্টি পড়ে টাপুর টুপুর নদে এলো বান

তুমি যে আমার ঠিকানা গানের লিরিক্স

মনের ভাষা বলেছি
সুখের আশা করেছি,
তোমাকে আমি পেয়েছি ভালোবেসেছি
জীবন জুড়ে তুমি থাকোনা
তুমি যে আমার ঠিকানা,
তোমায় নিয়ে যত ভাবনা
এই আমি দুটি হাত বাড়িয়ে দিলাম।

মেহেদী রাঙা এই দু’হাতে
রাখি তোমায় জড়িয়ে,
হাসিতে আর ফুল সোহাগে দেব ভরিয়ে
একটি দুটি মায়াবী রাতে
কি যে আলো জ্বালিয়ে
মন যেতে চায়, তাই মন দিয়েছি।
বলিনি আমি তোমাকে ছাড়া
যাবো না কখনো
তুমি যেওনা যেন আমার আড়ালে,
জীবন জুড়ে তুমি থাকোনা,
তুমি যে আমার ঠিকানা,
তোমায় নিয়ে যত ভাবনা
এই আমি দুটি হাত বাড়িয়ে দিলাম।

বন্ধু হলাম দু:খ রাতে
তুমি আমি দুজনে
হয়তো সেই ভুল আধারে
পাবো আলো জীবনে
কখনো রোদ, ইন্দ্রধনু আমাদের বাগানে
কখনো আসে যায় সঙ্গোপনে।
বলিনি আমি তোমাকে ছাড়া
যাবো না কখনো
তুমি যেওনা যেন আমার আড়ালে,
জীবন জুড়ে তুমি থাকোনা
তুমি যে আমার ঠিকানা,
তোমায় নিয়ে যত ভাবনা
এই আমি দুটি হাত বাড়িয়ে দিলাম

আমি তোমার মনের ভেতর গানের লিরিক্স

আমি তোমার মনের ভেতর
একবার ঘুরে আসতে চাই
আমায় কতটা ভালবাস
সে কথাটা জানতে চাই
ভালবাসার যত কথা হৃদয় দিয়ে শুনতে চাই
তুমি শুধু আমার হবে পৃথিবীকে বলতে চাই

এ হৃদয়ে জ্বলেছে এক যাদুর মোমবাতি
তুমি আগুন হয়ে পুড়ছ আমার সারা দিবারাতি।
এ হৃদয়ে ফুটছে ফুল প্রেমের বার মাস
তুমি ফাগুন হয়ে রং ছুয়ালে মনের নীলাকাশ।।
এ প্রণয়ে অন্ধ হলাম প্রাণের আলো তুমি
দুঃখ এল ভুলে যেওনা বাঁচবো না তো আমি।
এ প্রণয়ে কথা দিলাম র্সূয চন্দ্র তাঁরা
স্বাক্ষী থেকে মরণ যেন হয়, হয়না তোমায় ছাড়া।।